ঢাকা শুক্রবার | ৩১শে জুলাই, ২০২০ ইং | ১৬ই শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আগামী নিউজ ডেস্ক
২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ | ০১:০০

বই: প্রযুক্তির ঝুঁকি ও নিরাপত্তা

tesst

২০১৫ সালে একটি মোবাইল নম্বর থেকে আইএসের নামে দেশের বিখ্যাত ও গণ্যমাণ্য ব্যক্তিদের হুমকি দেয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছিল। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নম্বরটি ট্রাক করে ওই সিম ব্যবহারকারীকে আটক করে মোবাইলটি জব্দ করে। কিন্তু ওই ব্যক্তি ও তার মোবাইল পুলিশের হেফাজতে থাকা কালীন একই নম্বর থেকে আরো কয়েকজন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিল্পী ও গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের হুমকি দেয়া হয়।

যখন মোবাইলটি ছিল পুলিশের কাছে। তখন টনক নড়ে তাদের। সাইবার ক্রাইমের উচ্চ পর্যায়ের টিম বসে নম্বর ক্লোন করে কল দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হন। এবং উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে ওই নম্বর ক্লোন করে হুমকিদাতাকে আটক করেন। প্রযুক্তির তেমন কিছু ব্যবহার না করলেও যে কোন সময় আপনি আমি পড়তে পারি এমন বহু বিপদে। আবার অন্য কেউ অপরাধ করে অনায়াসেই চালিয়ে দিতে পারে আপনার আমার নামে। পুলিশের তদন্তের আগেই কেল্লাফতে হতে পারে যে কারো।

এমন অসংখ্য সাইবার ক্রাইমের ঝুঁকি থেকে বাচতে ও নিরাপদে মোবাইল, কম্পিউটার, ফেসবুক ও ইন্টারনেট ব্যবহার করার নিয়ম কানুন জানার উপযুক্ত বই ‘সাইবার ক্রাইম: প্রযুক্তির ঝুঁকি ও নিরাপত্তা’। সাংবাদিক আব্দুল আলীমের লেখা এ বইটি চলতি অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৮ তে প্রকাশ করেছে ‘ইত্যাদি গ্রন্থ প্রকাশ’।পাওয়া যাচ্ছে মেলার সোহরাওয়ার্দী অংশে প্রবেশ পথে ২ নম্বর প্যাভিলিয়নে (মেলার সোহরাওয়ার্দী অংশে প্রবেশ করতেই দ্বিতীয় দোকানটি)। দাম রাখা হয়েছে ২৫০ টাকা।

বইটি সাজানো হয়েছে অসংখ্য কেস স্টাডি ও হ্যাকিং, প্রাকিং ও নানা কলা-কৌশলের বর্ণনা দিয়ে। সাইবার ক্রাইম কী? কীভাবে এটি সংঘটিত হয়? ডিজিটাল ব্যবস্থার কী কী সংকট রয়েছে? তথ্য প্রযুক্তির বিপ্লবের সঙ্গে এই অপরাধের ক্রমবৃদ্ধি কতটুকু? বিশ্বে কী কী ধরনের সাইবার ক্রাইম হয়? বাংলাদেশেই বা কেমন অপরাধ হচ্ছে বা আগামীতে হতে পারে? কম্পিউটার, মোবাইল ও অন্যান্য মাধ্যম ব্যবহার করে কী ধরনের অপরাধ হয়? ব্যাংকিং সেক্টরে কেমন অপরাধ হয়? সাইবার অপরাধকে কেন্দ্র করে যে বৈশ্বিক চক্র গড়ে উঠেছে তার অবস্থাই বা কী? সাইবার সম্পর্কিত ক্রিমিনাল ইন্ডাস্ট্রিজ এর অর্থনৈতিক অবস্থান কেমন? বাংলাদেশের আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এসব অপরাধ মোকাবিলায় কতটুকু সক্ষম? সাইবার ক্রাইমের সমাধান কোথায়? এসব প্রশ্নের সুস্পষ্ট উত্তরের আলোকেই লেখা হয়েছে এ গ্রন্থ।

বর্ণনা করা হয়েছে মোবাইলের মাধ্যমে প্রতারণা, কম্পিউটার ভিত্তিক সাইবার ক্রাইম ও অন্যান্য টেকনোলজি ব্যবহার করে বিশ্বব্যাপী অপরাধীরা যেসব অপরাধ করে থাকে, সে সম্পর্কে। বইটি পড়লে জানা যাবে প্রযুক্তি পণ্য ব্যবহারের ঝুঁকিপূর্ণ দিক ও সাইবার ক্রাইমের শিকার হলে কোথায় গিয়ে অভিযোগ করতে হবে, সে সম্পর্কে।

বিষয়সমূহঃ