ঢাকা রবিবার | ৩১শে মে, ২০২০ ইং | ১৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আগামী নিউজ
৩০ নভেম্বর, ২০১৭ | ১১:৪৮

এক কন্যা শিশুকে দত্তক নিতে ১৭ আবেদন!

tesst

মৌলভীবাজারে নবজাতক এক কন্যা শিশুকে দত্তক নিতে জমা পড়ে ১৭টি আবেদন। আগ্রহীদের আবেদন পর্যালোচনা করে জামালপুর জেলার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (ইসলামপুর সার্কেল) আবু সুফিয়ান দম্পতির আবেদন গ্রহণ করেন আদালত।

২৯ নভেম্বর বুধবার মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ (শিশু আদালত) মো. রফিকুল ইসলাম এ আদেশ দেন। মৌলভীবাজারের সদর উপজেলার শাহবন্দর এলাকার সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের পাশ থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়।

জানা যায়, গত ২০ নভেম্বর সন্ধ্যায় মৌলভীবাজার জেলার সদর উপজেলার শাহবন্দর নামক স্থানে এক নবজাতকের কান্নার শব্দ শুনতে পান স্থানীয়রা। পরে তারা পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে মডেল থানা পুলিশ নবজাতককে উদ্ধার করে পরিচর্যার জন্য মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যার হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে প্রেরণ করে। ঘটনাটি বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে শিশুটিকে দত্তক নিতে ১৭ জন আবেদন করেন। তাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে আজ বিভিন্ন দিক পর্যালোচনা করে জামালপুর জেলার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (ইসলামপুর সার্কেল) আবু সুফিয়ান দম্পতিকে মৌলভীবাজার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ (শিশু আদালত) দত্তক নেওয়ার অনুমতি দেন।

সন্ধ্যায় নবজাতককে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দত্তক নেওয়া দম্পতির কাছে হস্তান্তর করেছেন।

মৌলভীবাজার জজ আদালতের অতিরিক্ত পিপি কৃপা সিন্ধু দাশ দত্তক নিতে ১৭ জনের আবেদনের কথা জানিয়ে প্রিয়.কম-কে বলেন, ১৭টি আবদনের মধ্যে আদালত বিচার-বিশ্লেষণ করে জামালপুর জেলার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপারকে দত্তক প্রদানের আদেশ দিয়েছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহেল আহমদ জানান, জামালপুর জেলার ইসলামপুর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার দম্পত্তি কুড়িয়ে পাওয়া শিশুটি দত্তক নিয়েছেন।

সূত্র: প্রিয়ডটকম