ঢাকা শুক্রবার | ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং | ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সখী রানী
১০ ডিসেম্বর, ২০১৮ | ১৫:২৫

সফল নারী উদ্যোক্তা গাইবান্ধার নাজমীন রহমান

tesst

গাইবান্ধা সদর উপজেলার নাজমীন রহমান কিছুদিন আগেও ব্যস্ত থাকতেন গৃহস্থালির কাজে। পরিবারের সুস্থ্যতার কথা মাথায় রেখে ঘরেই বানাতেন নানা মজাদার নাস্তা ও ফাস্টফুড। প্রিয়জনদের কাছে প্রশংসাও কুড়িয়েছেন প্রচুর। সুখকর সে সময়েই তার পরিবারে হঠাৎ নেমে আসে দুঃখের ছাঁয়া। কর্মহীন হয়ে পড়েন তার স্বামী। ফলে পরিবারে অর্থিক সচ্ছলতা ফিরাতে সেই শখই এখন পরিণত হয়েছে পেশায়। মাথায় আসে ফাস্টফুডের দোকানের পরিকল্পনা। এ সময় সামর্থ্য প্রকল্পের মাসব্যাপী বেকিং বিষয়ক প্রশিক্ষনের সংবাদ পরিকল্পনাকে পরিণত করে সম্ভবনায়। ৪০ বছর বয়সে প্রকৃতির নিয়মে ঝিমিয়ে পড়ার কথা থাকলেও প্রশিক্ষণ শেষে নতুন উদ্যোমে এগিয়ে যাচ্ছেন নাজমীন রহমান। যার স্বরূপ ফুটে উঠেছে তার ব্যবসায়। প্রশিক্ষণের পর যন্ত্রপাতি কিনে শুরু করা ব্যবসায় এখন সন্তোষজনক আয় করছেন তিনি; হয়ে উঠেছেন স্বাবলম্বী। তবে, ক্ষুদ্র পরিসরে শুরু করা এ ব্যবসার প্রসারে মার্কেটিং বিষয়ে প্রশিক্ষণের দাবি রয়েছে তার। উদ্যোক্তা হওয়ার লড়াইয়ে নাজমীনের সহযোদ্ধা হয়ে পাশে দাড়িয়েছেন স্বামী মো. মোস্তাফিজুর রহমান রাফি। তিনি চান, সমাজের অন্য নারীদেরও এগিয়ে আসুক স্বাবলম্বী হওয়ার লড়াইয়ে। নাজমীন রহমানের মতো উদ্যোক্তাদের জন্য শুধু প্রশিক্ষণ নয়; ঋণ দিয়ে সাহায্য করছে স্থানীয় কিছু ব্যবসায়ীক প্রতিষ্ঠান। তবে, ব্যাংকের সাথে লিয়াজো করে আর্থিক সহযোগিতা দেয়ার আশ্বাস দিলেন, গাইবান্ধা জেলা চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সভাপতি শাহজাদা আনোয়ার কাদির। গত বছরের ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ১২টি ব্যাচে ৩শ’ যুব ও যুব নারী বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়েছে সামর্থ্য প্রকল্প।

সখী রানী
কমিউনিটি রেডিও ফেলো
রেডিও সারাবেলা ৯৮.৮ এফএম
গাইবান্ধা।

বিষয়সমূহঃ