ঢাকা মঙ্গলবার | ১৪ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে ভাদ্র, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

আগামী নিউজ
২১ জানুয়ারি, ২০১৮ | ১৬:১৫

এমপি পুত্রের লাশের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন, যা বলল ডাক্তার

tesst

সাতক্ষীরা-১ (তালা-কলারোয়া) আসনের এমপি মুহাম্মদ এডভোকেট মোস্তফা লুতফুল্লাহ একমাত্র ছেলে অনিক আজিজ (২৬) গলায় দঁড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

রবিবার (২১ জানুয়ারি) সকালে রাজধানীর সংসদ ভবন এলাকার ন্যাম ৫নং ভবনের ৫০৪ নম্বর কক্ষ থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। ওই ফ্ল্যাটে সংসদ সদস্য তাঁর দুই ছেলেমেয়েকে নিয়ে থাকতেন। শনিবার রাতে ন্যাম ফ্লাটটিতে অনিক, তার বোন সৃষ্টি ও ড্রাইভার ছিলেন। রাতে খাওয়া-দাওয়া শেষে সবাই ঘুমাতে যায়। সকালে সবাই ঘুম থেকে উঠলেও অনিক আজিজ উঠছিলেন না। অনেক ডাকাডাকি করলেও না উঠায় তার রুমের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে দেখা যায় তিনি গলায় দড়ি দিয়ে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত রয়েছেন।। পরে অনিককে উদ্ধার করে সোহরাওর্দী হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

জানা যায়, ২৭ বছর বয়সী অনীক খুলনার সিটি পলিটেকনিক থেকে ইলেক্ট্রিক্যালে ডিপ্লোমা করে বিদেশে পড়তে যাওয়ার জন্য ঢাকা থেকে আইইএলটিএস করছিলেন। পাশাপাশি পাঠশালায় ফটোগ্রাফির কোর্স করছিলেন তিনি।

শেরেবাংলা নগর থানার এসআই শফিকুর জানান, ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের তার গলায় পেঁচানো অবস্থায় অনীকের দেহ শোবার ঘরের ফ্যান থেকে ঝুলছিল। তার শরীরে আর কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

অনীকের লাশের ময়নাতদন্ত করেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান অধ্যাপক এ এম সেলিম রেজা।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, পুলিশের সুরতহাল প্রতিবেদনে যা লেখা হয়েছে, ময়নাতদন্ত করে তারও একই ধারণা হয়েছে।

পুলিশের সুরতহাল প্রতিবেদনে কী ছিল জানতে চাইলে এই চিকিৎসক বলেন, “লেখা ছিল গলায় তার পেঁচিয়ে আত্মহত্যা। আমার ফাইন্ডিংসেও তাই পাওয়া গেছে।”

বিষয়সমূহঃ