ঢাকা রবিবার | ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি
২৬ জানুয়ারি, ২০১৮ | ১৩:০৪

‘নিয়াজুলের অস্ত্র’ উদ্ধার

tesst অস্ত্র হাতে তেড়ে আসেন নিয়াজুল ইসলাম -ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জের ফুটপাতে হকার বসানো নিয়ে মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী এবং সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের সমর্থক ও হকারদের মধ্যে সংঘর্ষের সময় অস্ত্র হাতে তেড়ে যাওয়া নিয়াজুল ইসলামের খোয়া যাওয়া পিস্তলটি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সংঘর্ষের ১১ দিন পর বৃহস্পতিবার রাত সোয়া দুইটার দিকে নগরীর চাষাঢ়া সাধু পৌলের গির্জার সামনের ফুলের টব থেকে নিয়াজুলের পিস্তলটি উদ্ধার করে পুলিশ।

সদর মডেল থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক সমকালকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গত ১৬ জানুয়ারি নগরীর চাষাঢ়ায় ফুটপাতে হকার বসাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষের সময় নিয়াজুল ইসলামকে অস্ত্র হাতে দেখা যায়। সেসময় মারধরের শিকার হন তিনি। মেয়র ও তার সমর্থকদের অস্ত্র উঁচিয়ে আলোচনায় আসেন নিয়াজুল ইসলাম খান। হামলায় মেয়র আইভী ও সাংবাদিকসহ অর্ধশতাধিক আহত হন। ঘটনার পর থেকে নিয়াজুল পলাতক।

সাবেক যুবলীগ নেতা নিয়াজুল সাংসদ শামীম ওসমানের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত। তার ভাই নজরুল ইসলাম সুইট আওয়ামী লীগের নেতা ছিলেন। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময় কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন তিনি। মেয়র আইভীর অভিযোগ, নিয়াজুল পিস্তল উঁচিয়ে তাকে মারতে আসেন। তিনি শামীম ওসমানের চার ‘খলিফার’ একজন।

তবে শামীম ওসমানের দাবি, তিন দফায় মারধরের শিকার হয়ে লাইসেন্স করা অস্ত্র বের করেন নিয়াজুল। তবে তার অস্ত্র থেকে কোনো গুলি বের হয়নি। তার অস্ত্রের ব্যালিস্টিক পরীক্ষার দাবি করেন এমপি শামীম। নিয়াজুলের অস্ত্র কেড়ে নেওয়ার বিষয়ে তদন্তের কথাও বলেন তিনি। নিয়াজুলের কোনো অপরাধ হয়ে থাকলে ফুটেজ দেখে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও বলেন এই এমপি।